দৈনিক নবতান
জনতার সংসদ

BREAKING NEWS

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সরিষাবাড়ী সাব-রেজিষ্ট্রী অফিসে লাঠি-শোঠা নিয়ে মারমুখী উত্তেজনা

0

স্টাফ রিপোটার:
জামালপুরের সরিষাবাড়ী সাব-রেজিষ্ট্রী অফিসের দলিল লেখক ও ষ্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যান সমিতির দু-গ্রপে আধিপত্য বিস্তার কে কেন্দ্র করে বাক-বিতন্ডার একপর্যায়ে লাঠি-শোঠা নিয়ে মারমুখি উত্তেজনায় সাবেক সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেন পলায়ন করেছে বলে তথ্য পাওয়া গেছে। আজ সোমবার (১৬আগষ্ট) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সরিষাবাড়ী সাব-রেজিষ্ট্রী অফিসে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জমি ক্রেতা-বিক্রেতাদের মাঝে আতংকের সৃষ্টি হলে তারা দৌড়া দৌডি করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সরিষাবাড়ী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মাঝে যে কোন সময় উত্তেজনায় রক্ষক্ষয়ী সংঘষের ঘটনা ঘটতে পারে বলে স্থানীয়রা আশংকা করছে।
সমিতির একাংশ সদস্যদের দাবী,সরিষাবাড়ী সাব-রেজিষ্ট্রী অফিসের সাব-রেজিষ্ট্রী অফিসের দলিল লেখক ও ষ্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যান সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেন এর বিরুদ্ধে দলিল লেখক ও ষ্ট্যাম্প ভেন্ডার সমিতির সদস্যদের জমাকৃত ৮০ লাখ টাকা আতœসাতের অভিযোগ এনে সম্প্রতি সমিতির একাংশ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন।ওই মামলা দায়ের করার পর থেকে কামাল হোসেন আতœগোপনে থাকে। গতকাল সোমবার সকালে কিছু ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে সাব রেজিষ্ট্রি অফিসের কামাল হোসেন এর কক্ষে বসে সমিতির সদস্যদের নানা হুমকি ধামকি দিতে থাকলে অপর পক্ষ এর প্রতিবাদ করলে দু গ্রপের মাঝে বাক-বিতন্ডার একপর্যায়ে লাঠি শোঠা নিয়ে মারমুখি উত্তেজনায় সংঘর্ষের রুপ নেয়। এ ঘটনায় উভয় পক্ষ সংঘর্ষের জন্য সমবেত হয়ে প্রস্তুতি নিলে খবর পেয়ে সরিষাবাড়ী থানা পুলিশ ঘটঁনা স্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
এ ব্যাপারে সাবেক সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেন বলেন, আমাকে সোহেল রানার নেতৃত্বে সমিতির এশটি অংশ সিন্ডিকেট হয়ে আমার বিরুদ্ধে ৮০ লাখ টাকার মিথ্যা অভিযোগ এনে মামলা করেছে। তাই আমি অফিসে যাই না।এর পরের সোমবার অফিসে গেলে আমাকে নানা হুমকি দিতে থাকলে আমার উর্ধবতন মহলে জানাই।পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। তিনি আরও জানান আমি গত ১৩ জুন থেকে অফিসে যাইনা।
সমিতির একাংশের পক্ষে সোহেল রানা জানান, কামাল হোসেন এর বিরুদ্ধে আদালতে ও সরিষাবাড়ী থানায় মামলা থাকা সত্তে¡ও অফিস খোলার প্রথম দিন সোমবার(১৬ আগষ্ট) সাড়ে ১১টার দিকে ভাড়া করা লোকজন নিয়ে আমাদের অফিস কক্ষ তছনছ আমাদের নানা হুমকি দিতে থাকলে আমরা বিষয়টি বুঝতে পেরে আমরাও প্রতিবাদ করি। এক পর্যায়ে তীব্র উত্তেজনায় সরিষাবাড়ী থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে উভয় পক্ষকে শান্ত করে পরিস্থিততি নিয়ন্ত্রনে আনে।তিনি আরও বলেন,আমাদের জমাকৃত টাকা না দিয়ে আতœ গাপন করা সহ প্রভাব খাটিয়ে সমিতিতে প্রবেশ করে আমাদের স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত করে অধিপত্য অর্জন করতে চায়। আমরা আমাদের জমাকৃত টাকা ফেরত এবং এর বিচার চাই।
জানতে চাইলে সরিষাবাড়ী সাব রেজিষ্ট্রিার বিলকিছ আরা কে মোবাইল ফোনে ফোন করলে তিনি রিসিপ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার ওসি(তদন্ত) আব্দুল মজিদ জানান, সরিষাবাড়ী সাব-রেজিষ্ট্রী অফিসের দলিল লেখক ও ষ্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যান সমিতির দু-গ্রপের মারমুখি উত্তেজনার খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনা হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.