দৈনিক নবতান
জনতার সংসদ

ছেলের বিরুদ্ধে মায়ে’র মামলা

0

স্টাফ রিপোটার :
জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের বগারপাড় গ্রামের মৃত খুদিরাম রায়ের ছেলে সুমন সুত্রধর,দিলীপ সুত্রধর, সুকুমার সুত্রধর ও পুত্রবধু মঞ্জুরাণী সহ ৪ জনের মধ্যে সুমন সুত্রধরকে মামলায় প্রধান আসামী করে আদালতে একটি মামলা করা হয়। মামলাটি চলতি বছরের ২৪ শে এপ্রিল মামলার প্রধান আসামীর বড় ভাই রিপন চন্দ্র সুত্রধরের স্ত্রী অনামিকা সুত্রধরের ৫ ভরি স্বর্ণঅলংকার চুরি হওয়ায় তার দেবর সুমন সুত্রধর,ভাসুর দিলীপ সুত্রধর,সুকুমার সুত্রধর এবং জা মঞ্জুরাণীরূ এর উপর সন্দেহ করে এবং তার স্বর্ণঅলংকার গুলো ফেরত চাওয়ায় তাকে মারপিট করে এ অভিযোগ এনে আদালতে ৪ জনের বিরুদ্ধে ২৯ এপ্রিল তারিখে মামলা দায়ের করেন।ওই মামলায় ৭জন স্বাক্ষীর মধ্যে অনামিকা সুত্রধরের ভাসুর সুশান্ত কুমার রায় কে ৩ নংস্বাক্ষী করা হয়।আদালত মামলাটির তদন্ত করার জন্য সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনর্চাজকে নির্দেশ দিলে সরিষাবাড়ী থানার এস আই বশিরুল আলম তদন্তের জন্য গত ৩০ আগষ্ট আসামীদের গ্রামের বাড়ী বগারপাড় গ্রামে গেলে মামলার প্রধান আসামীর বড় ভাই রিপন চন্দ্র সুত্রধরের স্ত্রী অনামিকা সুত্রধর এবং ভাসুর সুশান্ত কুমার রায়ের উপর তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে।
উক্ত ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহের জন্য মামলার স্বাক্ষী সুশান্ত কুমার রায় এর বিরুদ্ধে তার মা সুপ্রভারাণী রায় এর আদালতে দায়ের করা মামলার আরজীতে উল্লেখ করেন,২০২১ সালের গত ৫ জুন রোজ শনিবার সকাল টায় বগারপাড় গ্রামের বাড়ীতে পুর্বপরিকল্পিত ভাবে সুশান্ত কুমার রায় বদনার মধ্যে মরিচের গুড়া পানিতে গুলে ওই পানি বাথরুমে রেখেছে তা ব্যাবহার করে মৃত্যুযন্ত্রনায় অজ্ঞান হয়ে পড়ে সুপ্রভারাণী রায়। এ সুযোগে সুপ্রভারাণী রায়ের স্বামীর পেনশনের ষ্টিলের বাস্কে রাখা ওই বাস্ক খুলিয়া ২ লাখ টাকা চুরি করে নেয়। এ সময় সুকুমার চন্দ্র সুত্রধরের ছোট ভাই সুমন চন্দ্র ও বোন হাসি রানী সহ অনান্যরা এগিয়ে এলে খুন জখম করার হুমকি দিয়ে লোহার রড় দিয়ে বসত ঘরের বেড়ায় পিটিয়ে ১০ হাজার টাকার ক্ষতি করে চলে যায় বলে আরজীতে উল্লেখ করে ঘটনার ৩ মাস পর গত ৫ সেপ্টেম্বর আদালতে এ মামলাটি দায়ের করেছেন।
ভুক্তভোগী পরিবার সুশান্ত কুমার রায় এর স্ত্রী বন্যা সুত্রধর জানান,আমার শাশুড়ী সুপ্রভারাণী রায় যে মামলাটি করেছে ওই তারিখ ও সময়ে আমারা দুজনেই বাচ্চা নিয়ে আমার বাবার বাড়ীতে ছিলাম। তিনি আরও জানান গত এক বছর ধরে আমরা বাবার বাড়ীতে বসবাস করলেও আমার স্বামীর বিরুদ্ধে মিথ্যা ঘটনার বর্ননা দিয়ে গত ৫ সেপ্টেম্বর আদালতে মামলা করেছে। আমরা এটির সুরাহা চাই।
মামলার বাদী সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের বগারপাড় গ্রামের মৃত খুদিরাম সুত্রধরের ছেলে রিপন চন্দ্র সুত্রধরের স্ত্রী অনামিকা সুত্রধর জানান,আমার পিতার দেয়া ৫ ভরি স্বর্ণঅলংকার চুরি করেছে দেবর সুমন সুত্রধর,ভাসুর দলীপ সুত্রধর,সুকুমার সুত্রধর এবং জা মঞ্জুরাণী।তারা স্বর্ণঅলংকার ফেরত না দিয়ে মামলার স্বাক্ষী আমার ভাসুর সুশান্ত কুমার রায় এর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। আমরা এর বিচার ও আমার স্বর্ণঅলংকার ফেরত চাই।
এ ব্যাপারে মামলার স্বাক্ষী সুশান্ত কুমার রায় এর ছোট ভাই সুমন সুত্রধর এর মোবাইল ফোনে ফোন করে তার মাতা মামলার বাদী সুপ্রভারাণী রায় কে চাইলে তিনি বলেন, আমি দুরে আছি। তিনি আরও বলেন, ঘটনা সত্য না হলে একজনের বিরুদ্ধে মামলা করা যায় না বলে উল্লেখ করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.