দৈনিক নবতান
জনতার সংসদ

BREAKING NEWS

বান্দরবান জ্ঞানরত্ন বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত

0

মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম: বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি:
শীল, সমাধি, প্রজ্ঞানুশীলন এর মোক্ষম সময় পবিত্র ত্রৈমাসিক বর্ষাবাস এবং পবিত্র প্রবারণার মধ্যে দিয়েই সমাপ্ত হয় বর্ষাব্রত অধিষ্ঠান। অতঃপর শুরু হয় দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানোৎসব।

তথাগতের ধর্মসুধা আস্বাদনের প্রদীপ্ত চেতনা ও দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দান করার পূন্য বিশোভিত চিত্তে বান্দরবান জ্ঞানরত্ন বৌদ্ধ বিহারে দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানোৎসব উদযাপিত হয়েছে ১৩ নভেম্বর রোজ শনিবার।
কঠিন চীবরদান উপলক্ষে অনুষ্ঠানের ১ম পর্বে মহাসংঘদান ও ধর্মসভার আয়োজন করা হয়েছে। ভোর ৫টায় পবিত্র ত্রিপিটক থেকে পাঠ, জাতীয় ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন ও সংঘদান আরম্ভ করা হয়।

ধর্মালোচকবৃন্দ হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আম্রকানন বৌদ্ধ পল্লীর অধ্যক্ষ ভদন্ত সংঘপ্রিয় মহাথের, সাতকানিয়ার ঢেমশা শাক্যমুনি বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত শীলানন্দ মহাথের, চন্দনাইশের চেমি কপিলাবাস্তু বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ দীপংকর মহাথের, বালাঘাটা কেন্দ্রীয় বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ তেজপ্রিয় মহাথের, পটিয়ার বাঘখালী বোধিসত্ত¡ বিহারের ভদন্ত বিনয় রক্ষিত মহাথের, বান্দরবান বৌদ্ধ অনাথালয়ের পরিচালক উ: তিক্ষিন্দ্রিয় থের।
এতে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেছেন মিসেস দীপ্তি বড়ুয়া, প্রিয়বালা তঞ্চঙ্গ্যা, দিরিমালা তঞ্চঙ্গ্যা, শিক্ষিকা লজ্জ্বাবতি তঞ্চঙ্গ্যা, উজলা তঞ্চঙ্গ্যা, সীতা তঞ্চঙ্গ্যা।

অনুষ্ঠানের শুভ উদ্ভোধন ঘোষণা করেন বান্দরবানের পরিবার পরিকল্পানা কর্মকর্তা বাবু অনাদি রঞ্জন বড়ুয়া।
পঞ্চশীল প্রার্থনা করেন শিক্ষিকা সুনিল তঞ্চঙ্গ্যা।

১ম পর্বে সকাল ১১টায় ভিক্ষুসংঘের পিন্ডদান সহ দুপুর ১২.৩০ মিনিটে পূণ্যার্থীবৃন্দের মধ্যাহ্নভোজন অনুষ্ঠিত হয়।
২য় পর্বে বেলা ২টায় ধর্মসভার আয়োজন করা হয়েছিল। এতে মঙ্গলাচরণ করবেন জ্ঞানরত্ন বৌদ্ধ বিহারের ভদন্ত রূপানন্দ ভিক্ষু। পূনরায় মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন মুরতি বিকাশ কারবারী, সুবল চন্দ্র চাকমা, স্বপন বড়ুয়া, বাবুল চৌধুরী, বিমান বড়ুয়া, শ্যামল তঞ্চঙ্গ্যা, শিক্ষক বিপুল বড়ুয়া, শিক্ষক সনৎ কুমার বড়ুয়া, শ্যামল বড়ুয়া, ভুটান বড়ুয়া।
২য় পর্বের শুভ উদ্ভোধন ঘোষণা করেন জ্ঞানরত্ন বৌদ্ধ বিহারের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ভদন্ত সত্যজিৎ থের।
অনুষ্টানে উপস্থিত থেকে স্বাগত ভাষণ প্রদান করেন চীবর দান উৎসব উদযাপন পরিষদের সভাপতি উদ্বেন্দু বিকাশ তঞ্চঙ্গ্যা, পঞ্চশীল প্রার্থনায় অংশ নেন প্রকৌশলী জীবেন্দ্র লাল বড়ুয়া।
ধর্মালোচনায় ছিলেন বাঁশখালী কেন্দ্রীয় শীলকূপ চৈত্র বিহারের কর্মবীর দেবমিত্র মহাথের, দেবপাহাড় পূর্ণাচার আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ বিহারের উপাধ্যক্ষ ভদন্ত আর্যপ্রিয় মহাথের, লোহাগাড়া বড়হাতিয়া বৌধি নিকেতন বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত শুদ্ধানন্দ মহাথের, বান্দরবান সার্বজনীন বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত চন্দ্রজ্যোতি থের, লোহাগাড়া চরম্বা বিবিবিলা শান্তি বিহারের ভদন্ত এস. ধর্মতিলক থের।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাস, কাঞ্চনজয় তঞ্চঙ্গ্যা এবং বান্দরবান পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি অমল কান্তি দাশ।
সম্মানীত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র দিলীপ বড়ুয়া ও ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত কাউন্সিলর মিসেস দীপিকা তঞ্চঙ্গ্যা।
অনুষ্ঠান সঞ্চলতার দায়িত্বে ছিলেন জ্ঞাতরত্ন বৌদ্ধ বিহার পরিচালনা কমিটির সহ সাধারণ সম্পাদক অসীম বড়ুয়া।
এ মহতী পূন্যানুষ্ঠানে ২য় পর্বে সভাপতির আসন অলংকৃত করেন বান্দরবান পারহিতা বৌদ্ধ বিহারের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ উঃ পান্ডিচা মহাথের। প্রধান ধর্মদেশক হিসাবে উপস্থিত ধর্মদেশনা প্রদান করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাচ্য ভাষা বিভাগের প্রাক্তন চেয়ারম্যান ড. জিনবোধি মহাথেরো।

প্রধান জ্ঞাতি হয়ে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য মন্ত্রীর সহধর্মীনি মেহ্লা প্রু।
এতে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানান জ্ঞানরত্ন বৌদ্ধ বিহারের বিহার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক খোকন কুমার বড়ুয়া।

Leave A Reply

Your email address will not be published.