দৈনিক নবতান
জনতার সংসদ

অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে নিজের স্ত্রীর দৈহিক মেলামেশার ভিডিও ভাইরাল করার হুমকি

0

 

স্টাফ রিপোটার :
জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে তারাকান্দি সরবান হাসান টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ এর বিরুদ্ধে নিজের স্ত্রীর দৈহিক মেলামেশার ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দেওয়া সহ নানা হুমকির অভিযোগ উঠেছে।এ ঘটনায় চলতি বছরের গত ১৬ সেপ্টেম্বর সরবান হাসান টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজের গভর্ণিং বডির সভাপতি ফজলুল হক এর বরাবর ভুক্তভোগী অধ্যক্ষের স্ত্রী সু-বিচারের দাবীতে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সরিষাবাড়ী উপজেলার মহাদান ইউনিয়নের নলদাইর গ্রামের মফিদুল ইসলামের কন্যা মারিফা জান্নাত লামিয়া এর সাথে ২০২২ইং সালের ১২ নভেম্বও একই ইউনিয়নের মহাদান গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদীন এর ছেলে আব্দুল আজিজ এর সহিত রেজিস্ট্রি কাবিন মূলে বিবাহ হয়।বিবাহের সময় ছেলে পক্ষকে ৩ লক্ষ টাকার গহনা,২ লক্ষ টাকার আসবাবপত্র ও নগদ ৩ লক্ষ টাকা বাড়ি ঘর মেরামত করার জন্য উপঢৌকন দেন দরিদ্র মেয়ের বাবা। বিবাহের পর থেকে তিনি অতিরিক্ত যৌতুক হিসেবে লামিয়ার বাবার বাড়ি থেকে ৫ লক্ষ টাকা এনে দেওয়ার জন্য প্রতিনিয়ত চাপ প্রয়োগ সহ মানসিক নির্যাতন করে আসছে। এ প্রেক্ষিতে চলতি বছরের গত ১৫ আগস্ট মঙ্গলবার স্ত্রী লামিয়া তার স্বামী’র দাবীকৃত যৌতুকের টাকার জন্য তার পিতৃালয়ে যায়। লামিয়া তার বাবার কাছে স্বামীর চাহিদামত ৫ লক্ষ টাকা চাইলে তার বাবা টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানায়।পরবর্তীতে ভুক্তভোগী স্ত্রী লামিয়া ঐদিনই বিকালে পিতার বাড়ী থেকে ভ্যানগাড়ী যোগে তার শ্বশুর বাড়ী পৌছালে তার স্বামী,শাশুড়ী আনোয়ারা বেগম ও ননদ জোছনা বেগম টাকা এনেছে কিনা জিজ্ঞাসা করে। জবাবে ভুক্তভোগী লামিয়া টাকা আনতে পারেনি বলে জানালে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ভুক্তভোগী লামিয়াকে কে এলোপাথারি কিলঘুষি দিয়ে বাড়ী থেকে বের করে দেয় এবং নানা হুমকি-ধামকি প্রর্দশন করে। ওই দিনই রাত হয়ে যাওয়ায় ভুক্তভোগী লামিয়া কোন উপায় না দেখে পার্শ্ববর্তী তার মামা শ্বশুরের ছেলে সম্রাট ও সম্রাটের স্ত্রীর সহযোগিতায় তাদের বাড়ীতে রাত্রী যাপন করে।পরের দিন সকালে লামিয়া তার বাবার বাড়ীতে চলে যায়।এর পরেও লামিয়ার স্বামী কোন খোঁজ খবর ও ভরণ পোষণ বহন করেন না। ভুক্তভোগী লামিয়ার অভিযোগে আরোও উল্লেখ করেন,লামিয়ার স্বামী আব্দুল আজিজ তার স্ত্রীর দৈহিক মেলামেশার ভিডিও গোপনে ধারণ করে রেখেছেন। পরবর্তীতে লামিয়াকে বø্যাক মেইল করে বলে যে, যদি তোর বাবার বাড়ী থেকে ৫ লক্ষ টাকা এনে না দাও তাহলে তোকে তালাক সহ গোপনে ধারণকৃত মেলামেশার ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দিবে বলে হুমকি দেয়। ভুক্তভোগী লামিয়া তিনি আরোও উল্লেখ করেন যে,তার স্বামী একজন লম্পট,চরিত্রহীন,মিথ্যাবাদী ও লেবাসধারী বকধার্মিক। আমাকে বিয়ে করার পূর্বে তিনি টাঙ্গাইলে একটি বিয়ে করেছিলেন যা তিনি আমার বাবার কাছে গোপন রেখে প্রতারণা করে আমাকে বিয়ে করেন। ভুক্তভোগী পরিবারটি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের ও সুধী মহলের কাছে আশু দৃষ্টি কামনা করেছেন।

এ ব্যাপারে সরবান হাসান টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ মুঠোফোনে ফোন করলে তিনি কিছু বিষয় পাশ কাটিয়ে যান এবং ঘটনার অস্বীকার করেন।

এ ব্যাপারে সরবান হাসান টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজের গভ:র্ণিং বডির বিদ্যোৎসাহী সদস্য ও সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজের অধ্যক্ষ মোশারফ হোসেন জানান, তারাকান্দি সরবান হাসান টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ এর স্ত্রী বিষয়টি দ্রæত সমাধানের জন্য কয়েকবার বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সরবান হাসান টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজের গভর্ণিং বডির সভাপতি প্রফেসর ডা.ফজলুর রহমান এর কাছে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ এর স্ত্রী’র বিষয়টি জানতে পেরে তাকে মিমাংসা করার জন্য কয়েকবার তাগিদ দেওয়া হয়েছে। সমাধা না করে থাকলে আবারও বলা হবে বলে জানান তিনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.