দৈনিক নবতান
জনতার সংসদ

BREAKING NEWS

আলীকদমে তল্লাশিচৌকিতে গুলি ভুল–বোঝাবুঝি: পুলিশ

0

সাইফুল ইসলাম: বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি:
বান্দরবানের আলীকদমের ডিম পাহাড় এলাকার যৌথ তল্লাশিচৌকিতে ভুল–বোঝাবুঝি থেকে গুলির ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এতে একটি ট্রাকের চালকের দুই সহকারী গুলিতে আহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত পৌনে একটার দিকে ইট-বালু পরিবহনের একটি ট্রাক তল্লাশিচৌকির ব্যারিকেড (প্রতিবন্ধকতা) পার হওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে।
আহত দুজন হলেন মোহাম্মদ তারেক (২০) ও মো.আরাফাত (২৬)। তাঁদের মধ্যে তারেকের বাড়ি আলীকদমের চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের দুপ্রুঝিরি এলাকায় এবং আরাফাতের বাড়ি একই ইউনিয়নের শিবাতলী এলাকায়। আরাফাতকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তারেক হাসপাতালে ভর্তি আছেন বলে স্থানীয় একটি সূত্র জানিয়েছে।
রুমা ও থানচিতে হামলার পর আলীকদম উপজেলায় পুলিশ ও সেনাদের একটি যৌথ তল্লাশিচৌকিতে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়েছে বলে খবর পাওয়া যায়। হামলা ঠেকাতে নিরাপত্তাবাহিনী গুলি চালায়। পরে জানা যায়, এটি ছিল বালু পরিবহনের ট্রাক।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপমহা–পুলিশ পরিদর্শক ডিআইজি নুরে আলম মিনা আজ সন্ধ্যায় বলেন, এটি ভুল–বোঝাবুঝি ছিল। একটি বালুর ট্রাক তল্লাশিচৌকির ব্যারিকেড অতিক্রম করলে পুলিশ গুলি করে। রুমার-থানচির ঘটনার পর থেকে পুলিশ বাড়তি সতর্ক রয়েছে।
গতকাল বিকেল চারটার দিকে সরেজমিনে দেখা যায়, আলীকদম-থানচি সড়কটি ৩৩ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের। আলীকদম থেকে ২৬ কিলোমিটার গেলেই পুলিশ ও সেনাবাহিনীর যৌথ তল্লাশিচৌকি। এলাকাটি ‘ডিম পাহাড়ের ২৬ কিলো’ নামে পরিচিত। সেখানে ১২-১৩ জন সদস্য তল্লাশিচৌকিতে বসে আছেন। সড়ক দিয়ে জিপ ও মোটরসাইকেল চলাচল করছে। তবে তাঁরা যাত্রী ও চালকদের কাছ থেকে বিভিন্ন তথ্য জানতে চান এবং সঙ্গে কোনো মালামাল থাকলে তা তল্লাশি করছেন।
তল্লাশিচৌকি থেকে একটু দূরে কালামিয়াপাড়া এলাকায় সড়কের ওপর ট্রাকটি রয়েছে। ট্রাকটিতে এখনো ছোপ ছোপ রক্তের দাগ রয়েছে। সামনের কাচে রয়েছে দুটি গুলির চিহ্ন। গুলিতে ট্রাকটির বেশ কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।
আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সূত্র জানায়, থানচির বাকলাই-লিক্রি সীমান্ত সড়কের নির্মাণকাজ চলছে। সেখানে আলীকদম ও লামার শ্রমিকেরা কাজ করেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে ইটবোঝাই করে একটি ট্রাক আলীকদম থেকে থানচির বাকলাই-লিক্রি সীমান্ত সড়কের উদ্দেশে বের হয়।
পথিমধ্যে থানচি বাজারে আটকা পড়ে ইটবোঝাই ট্রাকটি। সেখানে রাত সাড়ে আটটা থেকে রাত সাড়ে নয়টা পর্যন্ত গোলাগুলি হয়। গোলাগুলি কমে গেলে ও পরিবেশ শান্ত হয়ে এলে রাত ১২টার দিকে থানচি বাজার এলাকায় ইটগুলো রেখে ট্রাকটি ফের আলীকদমের উদ্দেশে রওনা হয়। পথিমধ্যে ২৬ কিলো এলাকার তল্লাশিচৌকিতে ট্রাকটি গুলির মুখে পড়ে।
ক্ষতিগ্রস্ত গাড়ির মালিক ‘সুজন কোম্পানি’ নামের এক ব্যক্তি। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর গাড়ি থানচি থেকে আসার পথে ২৬ কিলো এলাকায় গুলির মুখে পড়ে।
পুলিশ সূত্র জানায়, তাঁদের কাছে খবর আসে, সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা থানচি থেকে আলীকদমের দিকে আসছে। এরপর পুলিশসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সতর্ক অবস্থান নেয়। রাত পৌনে একটার দিকে একটি ট্রাক থানচি-আলীকদম সড়কের ২৬ কিলো তল্লাশিচৌকি এলাকায় ব্যারিকেড ভেঙে পার হওয়ার চেষ্টা করে। ওই সময় গোলাগুলি হয়।
আহত ব্যক্তিদের মধ্যে ট্রাকটির চালকের সহকারী মোহাম্মদ আরাফাত মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমরা থানচি থেকে আলীকদম যাওয়ার পথে ২৬ কিলো এলাকার তল্লাশিচৌকি থেকে আমাদের ওপর গুলি করা হয়। এ সময় ট্রাকে থাকা আমরা তিনজনের মধ্যে দুজন আহত হই। এর মধ্যে তারেকের বুকে ও আমার পিঠে গুলি লাগে।’

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.